সামাজিক উন্নয়ন

সিএলপি প্রকল্পে মূল সুবিধাভোগী পরিবার নির্বাচন করার পরেই তাদের নিয়ে সামাজিক উন্নয়ন দল (এসডিজি) গঠন করা হয়। সকল সামাজিক উন্নয়ন দলে ১৮ মাস ধরে নিয়মিত সাপ্তাহিক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই আলোচনা সভাগুলোই সিএলপির প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের মূল কেন্দ্রবিন্দু। এখানে নানাবিধ বিষয় যেমন- পানি, পয়ঃনিস্কাশন ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নতি; স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা; পুষ্টি এবং দূর্যোগ প্রস্তুতিমূলক বিষয়গুলো তুলে ধরা হয়। সামাজিক উন্নয়ন বিভাগ (এসডি) প্রায় সকল গ্রামেই গ্রাম উন্নয়ন কমিটি (ভিডিসি) গঠন করে এবং পুরো চর এলাকার বৃহত্তর স্বার্থে এটিকে একটি স্বনির্ভর সংগঠন হিসাবে বিকশিত করা হয়।

সামাজিক উন্নয়ন বিভাগের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হল- সকল উপকারভোগী এবং তাদের স্বামীদের নিয়ে ‘জেন্ডার সংবেদনশীলতা প্রশিক্ষণ’ প্রদান করা। এখানে দম্পতিদের জেন্ডার সংবদেনশীলতা এবং সমতা বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয় যার মূল উদ্দেশ্য হল: দায়িত্বশীল আচরণ, সমতা, সহযোগীতা ও অন্যান্য দৈনন্দিন পারিবারিক বিষয়ে শিক্ষা প্রদান।

স্বাস্থ্যাভ্যাস পরিবর্তন কার্যক্রম

সামাজিক উন্নয়ন কার্যক্রমের আওতায়, সিএলপি এর  সকল কর্ম এলাকায় প্রকল্পের শুরু থেকে এখনও পর্যন্ত স্বাস্থ্যাভ্যাস পরিবর্তন কার্যক্রম চলমান রেখেছে। এই লক্ষ্যে মানব স¤পদ উন্নয়ন বিভাগ, প্রকল্পসমূহে সকল কার্যক্রমের মধ্যে সমন্বয় সাধন করেছে । স্বাস্থ্যাভ্যাস পরিবর্তন কার্যক্রমের বিষয়গুলো সাপ্তাহিক সামাজিক উন্নয়ন দলে দল মিটিং, পাক্ষিক ভিএসএল দল মিটিং, স্বাস্থ্য প্রকল্পের স্বাস্থ্য ও পুষ্টি শিক্ষা অধিবেশন এবং একক পরামর্শ এবং পুষ্টি প্রকল্পের আওতায় উঠান বৈঠকে আলোচনা করা হয় এবং নিয়মিত অনুসরণ ও পর্যবেক্ষণ করা হয়।

সামাজিক নিরাপত্তা

এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য হল সুবিধা বঞ্চিত অতিদরিদ্র পরিবারসমূহকে সাহায্য করা। মঙ্গার সময় যখন কাজের সুযোগ কম থাকে তখন পরিবারগুলোকে আয় বৃদ্ধিমূলক কাজের (আইইপি) সুযোগ করে দেয়াও সামাজিক নিরাপত্তা কার্যক্রমের অন্যতম প্রধান দিক। এটি অতিদরিদ্র পরিবারগুলোকে প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় জরুরি অনুদান ও ত্রাণ সরবরাহের মাধ্যমে ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় সাহায্য করে।

প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা ও পরিবার পরিকল্পনা

সিএলপি এর প্রথম ভাগ থেকে এখনও অবধি প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা ও পরিবার পরিকল্পনা প্রকল্পের বাস্তবায়ন অব্যহত রেখেছে। এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য যথাক্রমে (i) সিএলপির মূল অংশগ্রহণকারী পরিবারগুলোর স্বাস্থ্য, স্বাস্থ্যবিধি ও পুষ্টি এবং পরিবার পরিকল্পনার সমস্যাগুলো সনাক্ত করা; এবং (ii) সিএলপির কর্ম এলাকায় স্বাস্থ্য সেবার উপস্থিতি ও প্রাপ্যতা নিশ্চিত করা। প্রকল্পের আওতাভুক্ত গ্রামে পাক্ষিক স্যাটেলাইট স্বাস্থ্য ক্লিনিক পরিচালনা করা হচ্ছে যেখানে পুরো চর এলাকায় প্রাথমিক স্বাস্থ্য এবং পরিবার পরিকল্পনা সেবা প্রদান করা হয়। এই ক্লিনিক সিএলপির সহায়তা কালের পুরো ১৮ মাস ধরে অব্যাহত থাকে। রোগীদের পরিচর্যা করার লক্ষ্যে সিএলপি ওই এলাকায় বসবাসরত মহিলা সদস্যদের চর স্বাস্থ্যকর্মী পদে নিয়োগ দিয়ে থাকে যাদের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা মাধ্যমিক পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়। চর স্বাস্থ্যকমীদের সেবার ধারাবাহিক প্রবাহ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। প্রাথমিকভাবে চর স্বাস্থ্যকর্মীদের ঔষধ খরচ মেটানোর জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয় যাতে তারা সিএলপির সহায়তা শেষ হওয়ার পরেও ঔষধ বিক্রি করে আয় অব্যাহত রাখতে পারে।

গ্রাম সঞ্চয় ও ঋণ

২০১৬ এর মধ্যে সিএলপির মূল অংশগ্রহণকারী ও সমসংখ্যক নন-কোর (মূল অংশগ্রহণকারী নয়) অংশগ্রহণকারীকে একটি “সুরক্ষিত সঞ্চয় স্থান” প্রদানের লক্ষ্যে, সিএলপি গ্রাম সঞ্চয় ও ঋণ (ভিএসএল) প্রকল্প এর আওতায় সঞ্চয় ও ঋণ কার্যক্রম গ্রহণে অনুপ্রেরণা দিচ্ছে। ভিএসএল দল মূলত গোষ্ঠী নির্ভর একটি বিশেষ ক্ষুদ্র ঋণ কার্যক্রম পরিচালনা করে, যার লক্ষ্য হল চরের অধিবাসীদের নিরাপদ সঞ্চয় ও ঋণ সুবিধা দেয়া। প্রত্যেক ভিএসএল দল ১৫-২৫ জন সদস্য নিয়ে গঠিত। প্রত্যেক সদস্য নিজেদের যেকোন জরুরি গৃহস্থালি প্রয়োজনে অথবা কোথাও বিনিয়োগ করার দরকার হলে স্থানীয় ঋণদাতা, ক্ষুদ্র ঋণ দানকারী প্রতিষ্ঠান অথবা সমবায় সমিতির কাছে যাবার পরিবর্তে দলের মধ্যে একটি পরিচালনা কমিটি গঠনের মাধ্যমে নিজেরাই নিজেদের অর্থের সংস্থান করে। ভিএসএল কার্যক্রমের মাধ্যমে চরের দরিদ্র জনগোষ্ঠী নিজেদের উপার্জনের পথ সৃষ্টি করছে ও গৃহস্থালি পর্যায়ে সম্পদ তৈরি করছে এবং পরিশেষে বলা যায়, এটি দারিদ্র্য দূরীকরণে অবদান রাখছে।

সরাসরি পুষ্টি কার্যক্রম

সিএলপি এর ‘সরাসরি পুষ্টি কার্যক্রম’ প্রকল্পের মাধ্যমে নির্ধারিত সুবিধাভোগী, গর্ভবতী মহিলা, স্তন্যদায়ী মা এবং কিশোরীদের একক পরামর্শ দান, সচেতনতা বৃদ্ধি এবং নানাবিধ উপকরণ বিতরণ করে। চর সাস্থ্য কর্মীর মতই সিএলপি, চর পুষ্টি কর্মী (সিপিকে) নিযুক্ত করে যারা এসব পরামর্শ দান ও সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক অধিবেশনগুলো পরিচালনা করে। এছাড়াও তারা শিশুদের মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট এবং গর্ভবতী মা ও কিশোরী মেয়েদের আয়রণ ফলিক ট্যাবলেট এবং পরিবারের সকল সদস্যদের কৃমিনাশক বড়ি সরবরাহ করে।

5,123 total views, 1 views today